ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করতে অনেকেই আগ্রহী। কিন্তু স্কিল ডেভেলপমেন্ট করতে গেলেই যত ঝামেলা মনে হয় আর বাঁধ সাদে যে আমি মনে হয় পারবো না। “ইউ ক্যান উইন” বইয়ের লেখক শিব খেরা তার বইয়ে লিখেছিলেন আমরা সবাই স্বর্গে যেতে চাই। কিন্তু স্বর্গে যেতে চাইলে যে প্রথমে মরতে হবে আমরা তা ভূলে যাই।

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং থেকে আয় করা প্রায় অসম্ভব। টুকটুাক কিছু অ্যাপস থেকে মাঝে মাঝে কেউ অল্প-স্বল্প পেমেন্ট পেয়ে থাকে। প্রফেশনালরা অবশ্যই কম্পিউটারকে বেছে নিবে। আপনারও উচিৎ কম্পিউটার দিয়ে স্কিল ডেভেলপ করে কাজ করা।

মাইক্রোসফট অফিস অ্যাপ্লিকেশন

প্রথমে টাইপিং শিখে নিন। এটা আপনার খুব কাজে লাগবে। তারপর মাইক্রোসফট অফিস অ্যাপ্লিকেশন এর টুকটাক কাজ শিখে নিন।

ইন্টারনেট ব্রাউজিং

তারপর গুগল ক্রমে ইউটিউব, ফেসবুক ব্যবহার করা সহ কিছু ওয়েবসাইট ব্রাউজ করা ও তার ব্যবহার শিখুন। ইউটিউবে কোন কন্টেন্ট সার্চ করে খুঁজে বের করা, তা ডাউনলোড করা, ভিডিওতে কমেন্ট করা, রিপ্লাই দেয়া এসব শিখে নিন।

অনুরুপভাবে ফেসবুকে কন্টেন্ট সার্চ করা, বিভিন্ন প্রয়োজনীয় গ্রুপে জয়েন করা। সেখানে পোস্ট/ আর্টিকেল পড়া, ভিডিও দেখা, ম্যাসেঞ্জারে গ্রুপ চ্যাটিং করা এসব শিখে নিন।

একটা স্কিলের উপর একাডেমীতে কোর্স

মার্কেটপ্লেসে ঊর্ধ্বমুখী চাহিদা ও আপনার নিজের ইন্টারেষ্ট আছে এমন একটি স্কিল কোন একটি ভালো একাডেমী থেকে ডেভেলপ করুন। তাতে করে আপনার সুবিধা হবে যে আপনি কমিউনিটি সাপোর্ট পাবেন। কমিউনিটির মানুষজন কিভাবে কাজগুলো করছে তা হাতে কলমে দেখার সুবিধা হবে।

অনেকে আপনাকে গুগল/ ইউটিউবের কথা বলবে, তবে আমার দৃষ্টিতে তা পরের স্টেপ। মানে আপনি প্রথমে মিস-গাইডেড না হয়ে ভালো করে কাজটি শিখুন যতদূর সম্ভব। এরপর আজীবন আপনি ফেসবুক, গুগল, ইউটিউবকে কাজে লাগিয়ে প্রতিনিয়ত স্কিল ডেভেলপ করতে পারবেন।

আমাদের একাডেমী ডব্লিউ-থ্রি-টপার

আমাদের একাডেমীতে ৫ টি কোর্স রয়েছে। আমাদের একাডেমী সম্পর্কে জানতে নিচের ভিডিওটি দেখে নিন। তাছাড়াও আমাদের কিছু ফ্রি-কোর্স রয়েছে। যা আপনাকে স্কিল ডেভেলপ করতে সহযোগীতা করবে।

দিগন্ত হাসান রুবেল
লিড মেন্টর ও সিইও, ডব্লিউ-থ্রি-একাডেমী।

Leave a Reply

error: Content is protected !!